কবিতা articles

একগুচ্ছ কবিতা

একরাম কাদের আজাদ এর একগুচ্ছ কবিতা

একরাম কাদের আজাদ এর একগুচ্ছ কবিতা

একরাম কাদের আজাদ এর একগুচ্ছ কবিতা ফরেনসিক রিপোর্ট এই ধরুন আজ থেকে চৌত্রিশ বছর পর, তখন আমি ষাট,আবহমান পথ ধরে হাঁটছি। হঠাৎ কোনো বয়েসী যুবকের নিরুদ্দেশ চলা দেখে কৌতুহলে এগিয়ে এলেন। আবিষ্কার করলেন আপনার পরম্পরার আত্মীয়, কয়েক হাজার দিনের অন্তে দেখা আজ। ভেবে রেখেছেন এতদিনে আমি মৃত, আমার পূর্বপুরুষরা যেমন সদলবলে মরেছেন। আমার পিতার মৃত্যুসংবাদ

একগুচ্ছ কবিতা

মো: মাসউদ বিন সিরাজ এর একগুচ্ছ কবিতা

মো: মাসউদ বিন সিরাজ এর একগুচ্ছ কবিতা স্বাধীনতার মূল্য অবেলার আকাশ তখনো নিস্তেজ নয়, দিগন্তের বুকে মিলিয়ে যাচ্ছে নীড়ফেরা পাখিরা চারদিক ক্রমে ভয়ংকর নিস্তব্ধতায় আচ্ছন্ন হলো সন্ধ্যা ফেলে নেমে এল সেই পূর্ণযৌবনা রাত। নিস্তব্ধ, নিসাঢ়, নির্মোকে নির্বাক দূর কোনো গাঁয়ে বাজছে মুক্তির দামামা। হঠাৎ ঝড় তুলল বাঁশঝাড়, ঘুমন্ত পাখিরা জাগল, আর্তচিৎকারে ওরা প্রতিবাদ জানালো বটে,

নির্মলেন্দু গুন

না প্রেমিক না বিপ্লবী! শুভ জন্মদিন কবি নির্মলেন্দু গুন

নির্মলেন্দু গুন , না প্রেমিক না বিপ্লবী! শুভ জন্মদিন কবি নির্মলেন্দু গুন। কবিতার পাঠক মাত্রই জানেন কবিতা কতখানি মন ছুঁয়ে দিতে পারে । আর তা যদি হয় আধুনিক কবিতার প্রাণ পুরুষ নির্মলেন্দু গুণের কবিতা তাহলে তো চোখ বন্ধ করে তুলে নিতে হয় অক্ষরের প্রজাপতি উড়ানো নির্মলেন্দু গুণের কবিতার বইগুলো । কয়েক দশক ধরেই নির্মলেন্দু গুণ

আকিব শিকদার

আকিব শিকদার এর একগুচ্ছ কবিতা

আকিব শিকদার এর কবিতা এক হাতে কাঁচা আম, মুঠোফোন অন্য হাতে এক হাতে কাঁচা আম, মুঠোফোন অন্য হাতে মেয়েটা হয়তো বলছিল কথা তার প্রেমিকের সাথে খড়ের গাদায় হেলান দিয়ে বসে, নির্জন তটে মুখে তার সূর্যের আভা, ঠোঁটে তার হালকা হাসির ভাঁজ জিহ্বাতে টক খাওয়া টংকার, সাথে চুমুর আওয়াজ টক খেতে খেতে চুমু বিনিময় মজারই বটে।

কবি সায়াদাত চমন’র একগুচ্ছ কবিতা

কবি সায়াদাত চমন’র একগুচ্ছ কবিতা

কবি সায়াদাত চমন’র একগুচ্ছ কবিতা মৃত্যুর সংবাদ একদিন রেগেমেগে ভিখারীর থালা উল্টে দিতেই দেখি ওখানে একটা সাগর লুকানো ছিলো সাগরে ডুব দিয়ে দেখি চোখের পানির মতো লবণাক্ত ইতিহাস আমি সে করুণ ইতিহাসের টানে গভীর থেকে গভীরে যেতে যেতে বেদনায় মরে গেলাম। ভিখারী আমার মৃত্যু দেখে হাসছিলো আর বলছিলো – ‘আমাকে জানতে গিয়ে তুমি বেদনায় মরে

akib Shikder

আকিব শিকদার’র কবিতা

আকিব শিকদার এর কবিতা জবরদস্তিতে জগতযুদ্ধ জনৈক বয়োজ্যেষ্ঠের সন্মুখে নম্রতায় নতজানু, বলেছিলাম- ‘নিজেকে আমার পাহাড়ের পাশে এক সামান্য উইঢিবির মতো লাগছে।’ আবেগাপ্লুত সে জ্যেষ্ঠজন জবাব দিলেন- ‘সবুজ কুঁড়ির পাশে আমি যেন হলুদ পাতা, ঝরে পরবো জানি না কখন।’ আরও একদিন, অপ্রীতিকর প্রশ্নের মুখরা জবাব দিতেই সেই বৃদ্ধ বললো রাগত স্বরে- ‘নিজের ওজন বুঝে কথা বলতে

ইমতিয়াজ মাহমুদ এর কবিতা

কবি ইমতিয়াজ মাহমুদ এর একগুচ্ছ কবিতা

ইমতিয়াজ মাহমুদ এর কবিতা বেদনা . যে কোনো বেদনার পেছনে একটা গল্প আছে। গল্পটা বলতে পারবো না। বহুবার পড়ার পরও ওটা আমার কাছে ঘোলাটে মনে হয়েছে। কোনো আগা মাথা নাই। . বেদনার ইতিহাস? এ ব্যাপারে আমার আগ্রহ কম। বেদনার সঙ্গীত? আছে হয়তো। শোনা হয় নাই। বেদনার বর্ণ? নীল বা কালো বোঝা যায় না। . তবে

shitol borhan

অন্ধের দিনলিপি পাণ্ডুলিপি থেকে একগুচ্ছ কবিতা

আজ মেলায় ‍আসলো কবি শীতল বোরহান এর কাব্যগ্রন্থ অন্ধের দিনলিপি। প্রতিলিপি প্রকাশন থেকে প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থটি পাওয়া যাবে সব্যসাচী’র ৫২ নং স্টলে। চলুন পড়া যাক পাণ্ডুলিপি থেকে কিছু কবিতা।   জবাফুল জন্ম থেকে আমি সেই একটি ফুলকেই আপন ভেবে এসেছি, জবা; শৈশব, কৈশোর এমনকি মধ্যযৌবনের সহস্র স্বপ্নের ভিড়েও সাদামাটা গন্ধহীন ওই-ই একমাত্র চির আরাধ্যধন। হৃদয়-অভ্যন্তরে যে হরফে

nahid drubo

নাহিদ ধ্রুব’র একগুচ্ছ কবিতা

নাহিদ ধ্রুব’র একগুচ্ছ কবিতা   ব্রোকেন একটি সিগনেচার আমাকে দাঁড় করিয়ে দেয় কাঠগড়ায়   অজ্ঞাত অপরাধে ঘোরতর শাস্তি   আমার বয়স তখন সাত ধর্মাবতার — ধমকে বলেন বেছে নাও তুমি কার? মা’র নাকি বাবা’র?   আমি একটি ব্রোকেন চাবি বুঝতে পেরে— আর তালা খুলতে যাই নি কোনদিন!   সিমেট্রি ফুল মাকড়শার জাল ফেলে বাতাসে তুলে

farhana

ফারহানা হোসেন এর একগুচ্ছ কবিতা

“ফারহানা হোসেন এর একগুচ্ছ কবিতা “   শূন্যতা  ফেলে আসা দিনে তুমি থাকো স্মৃতি বলতে রইল, ক্ষুদে বার্তার ঝড়, এলোমেলো হঠাৎ বেজে ওঠা ফোন কষ্ট কষ্ট বলে চিৎকার ভালোবাসি ভালোবাসি অভিনয় হাত ধরার আকুলতা ছেড়ে দিতে চাওয়ার বোকামি চাওয়ার দাবী না পাওয়ায় অকারণ দোষারোপ তুমি থাকো তোমার অভিমানে যেখানে আমার প্রবেশ নিষেধ।   মৃত্যু মাটির

Top