বাবার ধর্ষণে গর্ভবতী মেয়ে!

বাবার ধর্ষণে গর্ভবতীমেয়ে, ৪৩ বছরেরকারাদণ্ড

কিশোরীমেয়েকে দিনের পর দিনধর্ষণের অভিযোগে বাবাকে ৪৩ বছরকারাদণ্ডের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। জানাগেছে, ধর্ষণের জেরে গর্ভবতীও হয়েপড়ে ওই কিশোরী। জন্ম নেয় এক কন্যাসন্তান। পরে শারীরিক জটিলতারকারণে মৃত্যু হয় সেই শিশুর। অভিযুক্তব্যক্তি কামরাজ, ত্রিচির বাসিন্দা।

২০১৩ সাল থেকে লাগাতার কামরাজমেয়ের উপর যৌননির্যাতন চালায় বলেঅভিযোগ। ২০১৫ সালের মার্চ মাসেকন্যাসন্তানের জন্ম দেন ওই কিশোরী।তখনই সামনে আসে গোটা ঘটনা।

স্ত্রী পাঝানিয়াম্মালের অভিযোগেরপ্রেক্ষিতে কামরাজকে গ্রেফতার করেপুলিশ। গত বুধবার ত্রিচির জেলা দায়রাআদালত কামরাজকে দোষী সাব্যস্তকরে ৪৩ বছরের সাজা ঘোষণা করেছে।নির্যাতিতা কিশোরী কামরাজ ওপাঝানিয়াম্মালের তৃতীয় সন্তান।

তবে এখানেই শেষ নয়! এর আগেপ্রতিবেশীকে খুনের দায়ে ৭ বছর জেলখেটেছে কামরাজ। অভিযোগ, জেলথেকে মু্ক্তির পর সে যখন বাড়ি ফিরেআসে, তখন স্ত্রী পাঝানিয়াম্মালেরবাড়িতে অনুপস্থিতির সুযোগে দিনেরপর দিন নাবালিকা কন্যাকে ধর্ষণ করেকামরাজ। যার জেরে গর্ভবতী হয়ে পড়েওই কিশোরী।

249 Views

*

*

Top