Aamir Khan – আমির খান ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেতা, প্রযোজক, পরিচালক,চিত্রনাট্য লেখক এবং টেলিভিশন উপস্থাপক। ভারতীয় চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় এবং প্রভাবশালী অভিনেতা

চাচা নাসির হুসেনের ‘ইয়াদোঁ কি বারাত’ (১৯৭৩) ছবিতে একজন শিশুশিল্পীহিসাবে তাঁর অভিনয় জীবন শুরু হয়।তবে পেশাগতভাবে তাঁর অভিনয়জীবনের সূচনা হোলি (১৯৮৪) ছবিরমাধ্যমে। প্রথম বাণিজ্যিকভাবে সফলছবি চাচাতো ভাই মনসুর খানেরকেয়ামত সে কেয়ামত তক। এই ছবিরজন্য তিনি ‘শ্রেষ্ঠ নবাগত অভিনেতা’হিসেবে ফিল্ম ফেয়ার পুরস্কার পান।১৯৮০ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত মোটসাতবার মনোনয়ন পেলেও তিনি ফিল্মফেয়ার পুরস্কার জেতেননি। অবশেষে১৯৯৬ সালে “রাজা হিন্দুস্তানি” ছবিরজন্য তিনি ফিল্ম ফেয়ার শ্রেষ্ঠঅভিনেতার পুরস্কার পান।

ভারত সরকারের তাকে শিল্পকলার প্রতিতার অবদানসমূহের জন্য ২০০৩ সালেপদ্মশ্রী পদক এবং ২০১০ সালেপদ্মভূষণ পদকে ভূষিত করেন। ২০১৩সালের এপ্রিলে, টাইম ম্যাগাজিনেরতালিকার তিনি বিশ্বের ১০০ সবচেয়েপ্রভাবশালী ব্যক্তিদের মধ্যে ছিলেন।

অভিনয়:

খান মাত্র আট বছর বয়েসে ইয়াদুন কিবারাত (১৯৭৩) এবং মাদহোশ (১৯৭৪)শিশু অভিনেতা হিসাবে কাজ শুরুকরেন। ১১ বছর পর প্রাপ্তবয়স্কঅভিনেতা হিসাবে কেতন মেহতার হোলি(১৯৮৪) ছবিতে কাজ করেন, যদিওছবিটি তেমন সাড়া ফেলতে সক্ষমহয়নি। প্রথম উল্লেখযোগ্য ছবি হিসেবে১৯৮৮ সালে কেয়ামত সে কেয়ামত তক মুক্তি পায়, যেটি মনসুর খান নির্দেশনাকরেন | ছবিটি বিরাট সাফল্য পায়এবং মুখ্য ভূমিকায় আমির খানজনপ্রিয় হয়ে যান। আমিরের চকোলেটহিরো লুক এর জন্য তিনি “টিনআইডল” হিসাবে পরিচিতি পান। রাখ ছবির জন্য আমির জাতীয় পুরস্কারপান, স্পেশাল জুরি শ্রেণীতে| ৮০দশকের শেষে এবং ৯০ দশকের শুরুতেআমির বেশ কয়েকটি ছবিতে অভিনয়করেন,যেমন দিল (১৯৯০), দিল কেমানতা নেহি (১৯৯১), জো জিতা ওহিসিকান্দার (১৯৯২), হাম হ্যাঁ রাহি পেয়ারম্যাঁয় (১৯৯৩).

315 Views

Related posts

*

*

Top